কোডিং জানা ছারা অ্যাপ তৈরি করে ইনকম

app coding

কোডিং জানা ছারা অ্যাপ কি ভাবে অ্যাপ তৈরি করবেন এবং সে অ্যাপ দিয়ে গুগল থেকে কি ভাবে ইনকাম করবেন আজ সেটাই বলবো।

আপনি যে কোনো অ্যাপ তৈরি করেন না কেনো আপনাকে কোডিং জানতে হয়। আর আপনি যুদি কোডিং না জেনে অ্যাপ তৈরি করে ইনকাম করতে চান তবেও আপনি পারবেন।

তবে আপনাকে একটু ধারণা রাখতে হবে। কারণ অ্যাপ তৈরি করে ইনকামের জন্য আপনাকে এড সো করাবার জন্য এড স্লথ আপনার অ্যাপটিতে তৈরি করে দিতে হবে।

আর এটার জন্য আপনাকে আপনার অ্যাপের কোডিংয়ে একটু পরিবর্তন আনতে হবে। আর এটা করার জন্য আপনার প্রফেশনাল অ্যাপ ডেবোলপার হওয়ার প্রয়োজন নেই।

আপনি এটা এমনিতেই করতে পারবেন। তবে নতুন নতুন হিসেবে আপনি একটু আকটু ঝামেলাতে পরতে পারেন আর তাও পড়বেন না যুদি একটু বুঝে শুনে কাজ করেন তবে।

কোডিং ছারা অ্যাপ তৈরি করাটা কি সম্ভব?

আনেকে ভাববেন দূষ্টি আকর্ষনের জন্য আমি এমনটা লিখেছি, আসলে এমন কিছূই না। আপনি চাইলে সত্যি সত্যিই কোনো প্রকার কোডিং জানাছার অ্যাপ তৈরি করে নিতে পারবেন।

তাও আবার হাই কোয়ালিটির অ্যাপ আপনি খুব সহজেই কম সময়ের মাধ্যমে তৈরি করে নিতে পারবেণ।

তবে যেহেতু আপনি কোডিং করবেন না সেহেতু অ্যাপটিতে আপনি নিজের মন মতো প্রগ্যাম সেট করতে পারবেন না। আপনাকে রেডিমেড প্রোগ্যাম অফার করা হবে আর সে প্রগ্যাম গুলো থেকে আপনি বাছাই করে নিতে পারবেন আপনার পছন্দের সেটিংটি।

কোডিং ছারা অ্যাপ তৈরি

আসলে কোডিং ছারা অ্যাপ তৈরি সম্ভব না। আপনার অ্যাপ তৈরির জন্য কোড করতেই হবে যেমন আপনাকে ওয়েব সাইট বানাতে হবে এডিটরে কোড লেখতে হয়।

অবশ্য এখন আর ওয়েসাইটের জন্য কোড লেখতে হয় না কারণ বিভিন্ন সি এম এস এখন চলে এসেছে যেগুলোতে কোড আগে থেকেই লেখা থকে আপনার কাজ শুধু কন্টেন্ট লেখা।

অ্যাপ তৈরিতেও এমন কিছু ওয়েবসাইট এসে গেছে যেগুলো এ সি এম এস গুলো মতোই। অ্যাপ তৈরির কোড আগে থেকেই লেখা থাকে আপনাকে শুধু আপনার মন মতো টেম্পেলেট, কালার, সেটিং, আর কন্টেন্ট সাজাতে হয়।

আর এ কাজ তুলনামূলক ভাবে খুবি সহজ আর সময়ও কম লাগে।

আপনারা এ ওয়েবসাইট গুলোর থেকেই অ্যাপ তৈরি করে নিবেন আপনাদের কাজের জন্য। পুড়ো লেখাটি পড়ুন কারণ এতটুকু ধারণা ‍দিয়ে আপনি অ্যাপতো তৈরি করে নিবেন কিন্তু নিজের করে নিতে পারবেন না।

আমি আপনাদের সাথে সে ওয়েবসাইটগুলো শেয়ার করছি আর কোন ওযেবসাইটে কাজ করতে কি কি লাগবে তাও আমি উল্লেখ করে দিবো। (গুগল প্লে স্টোরে পাবলিশ করার জন্য এবং এড মোব এড করার জন্য আপনাকে অ্যাপগুলোর কোনো একটা প্লেন কিনতে হবে)

কোডিং ছারা অ্যাপ তৈরির ওয়েব সাইটগুলো

1. AppsGeyser

সম্পূর্ণ ফ্রি ওয়েবসাইট যার মাধ্যামে অ্যাপ তৈরি করে তা সরাসরি প্লে স্টোরে পাবলিশ করার কথা আসলে অনেক ওয়েবসাইটের কথাই বলা যায় তবে আমি নিজে যে ওয়েবসাইটটি ইউজ করেছি এবং খুব ভালো ফলাফল পেয়েছি তা হলো AppsGeyser.

বলতে গেলে এর পেছনে আপনাকে কোনো টাকা খরচ করতে হয় না। আপনি শুধু স্টেপে স্টেপে গিয়ে নিজের বাছাই কম্পিলিট করে নিবেন। আপনাকে এখানে যে অ্যাপগুলো তৈরি করে নিতে পারবেন সে অ্যাপগুলো এখানে দিয়ে দিলাম।

  1. ভিডিও কল এন্ড চেট
  2. মেজেন্জার উইথ ভিডিও কল
  3. ব্রাউজার
  4. ওয়ালপেপার
  5. ফটো এডিটর
  6. অ্যাপ ফর টিকটক
  7. ফিসিং
  8. গাইড
  9. ফটো কিবোর্ড
  10. অ্যাপ ফর লাইকি
  11. স্লথ মেসিন
  12. মেচিং পাজিল
  13. ওয়ার্ড সার্চ
  14. কুইজ
  15. বুক রিডার
  16. কেস সিমুলরেটর
  17. মিডিয়া প্লেয়ার
  18. মোবাইল টিভি
  19. ফাইন্ড দা পেয়ার
  20. ওয়েব অ্যাপ
  21. 2048
  22. কালারিং
  23. মিউজিক
  24. মেজিক বল
  25. স্পিন দা বটল
  26. টেপ কোকিজ
  27. 15 গেম

এ ওয়েব সাইটটি দিয়ে অ্যাপ তৈরি করাটা খুবি সহজ। আর এখান থেকে আপনি চাইলে আপনার বিজনেস সহায়ক অ্যাপ খুব সহজেই তৈরি করে নিতে পারবেন। আমি নিজে আমার ওয়েবসাইটের জন্য এ অ্যাপটি ব্যবহার করে অ্যাপ তৈরি করেছি।

আপনি চাইলে আপনার তৈরিকরা অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোরে পাবলিশ করে দিতে পারবেন। (condition to publish app on play store)

AppsGeyser ই একমাত্র ওয়েবসাইট যেটির থেকে আপনার কোনো প্লেন কিনতে হয় না আর সরাসরি প্লে স্টোরে এড দিয়েদিতে পারবেন।

এখান থেকে আমি যে ওয়েবসাইটগুলোর কথা বলবো সে ওয়েবসাইটগুলোতে আপনি ফ্রিতে অ্যাপ তৈরি করে নিতে পারবেন তবে প্লে স্টোরে পাবলিশ করতে পারবেন না।আর সে জন্য আপনাকে তাদের প্র প্লেনটি কিনতে হবে।

আর এ ওয়েবসাইটগুলোতে আপনাকে দুটি স্তরে টাকা খরচ করতে হবে। স্তর গুলোর মধ্যে প্রথমটি হলো ওয়েবসাইটের প্র প্লে কেনা যাতে আপনার ১০০ ডলারের বেশী ডলার লাগতে পারে।

আর দ্বিতিয় স্তরটি হলো গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপ পাবলিশের জন্য ওয়ানটাইম রেজিস্টেশন ফি ২৫ ডলার। আপনাকে গুগলে এ ফি টি একবারই দিতে হবে প্রতিমাসে এটা দিতে হবে না।

কিন্তু আপনাকে অ্যাপ তৈরির ওয়েবসাইটগুলোতে প্রত্রিমাসে তাদের প্লেন ফি দিতে হবে।

আমি এখানে আপনাদের একটা সাজেশন দিবো। সেটা হলো আপনার যুদি মনে হয় আপনি ভালো এমাউন্ট ইনকাম করে নিতে পারবেন তো আপনি প্লেন কিনবেন নয়তো কিনবেন না।

কারণ আপনি এতগুলো টাকা খরচ করে প্লান কিনলেন অথচ আপনার ইনকাম মাস শেষে নেই। এমনটা হলে আপনার অ্যাপ আপনার লাভের চেয়ে বেশী আপনার ক্ষতি নিয়ে আসবে।

2. Adalo

অ্যাডালো একটা খুবি ভালো ওয়েবসাইট রেডিমেট অপশনদিয়ে অ্যাপ তৈরি করার জন্য।

আপনি অ্যাডালোতে ড্রাগ এন্ড ড্রপ এর ফাংশনটি পেয়ে যাবেন আর এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার অ্যাপে যে অপশনগুলো মেক করতে চান সেগুলো একে বারে কোড ছারা অপশন বার থেকে ড্রাগ করে এনে ছেরে দিলেই পারবেন। সে ফাংশনটি আপনার অ্যাপে অ্যাড হয়ে যাবে।

অ্যাডালো এর নামটি নেওয়া হয়েছে পূথিবীর প্রথম কম্পিউটার প্রগ্যাম যিনি তৈরি করেছিলেন অ্যাডা লাভলেস তার নাম থেকে।

অ্যাডালো ওয়েবসাইটটিতে আপনি তিনটি প্লেন দেখতে পেয়ে যাবেন যাদের মধ্যে একটি ফ্রি অ্যাপ মেক করার জন্য, আরেকটি ৫০ ডলারের আর সেটির নাম হলো প্র, আর শেষেরটির নাম হলো বিজনেস যার মূল্য ২০০ ডলার।

আপনি সবগুলো প্লেনেই আনলিমিটেড অ্যাপ তৈরি করে নিতে পারবেন তবে ফ্রি প্লেনে আপনি প্রতি অ্যাপে মাত্র ৫০ রো ডাটা এড করতে পারবেন এর বেশী পারবেন না।

আর বাকী প্লেগুলোরতে আপনি আপনার অ্যাপ গুগলে আপলোড করার সুযোগ পেয়ে যাবেন তবে প্র প্লেনে আপনার স্টোরেজ দেওয়া হবে ৫ জী বী, অ্যাপ বিল্ডিং এর সেট দেওয়া হবে ১টি।

আর বিজনেস এর জন্য স্টোরেজ ২০ জী বী এবং ৫টি অ্যাপ বিল্ডিং সেট।

3. apphive

অ্যাপহাইভ আনেকটা অ্যাডালো এর মতোই। তবে এখানে আপনি প্রাইছিং এ ৪ টি অপশন দেখতে পাবেন। চারটির একটি ফ্রি আর আপনি আর সাহায্যে ড্রাগ এন্ড ড্রপ পদ্বতির সাহায্যে আপনার অ্যাপ ডিজাউ করে নিতে পারবেন।

আপনি ফ্রিতে তৈরি করা অ্যাপ আপনি পাবলিশ করতে পারবেন না। এমনটি দ্বিতিয় যে অপশন পাইছিং এর যেটির নাম স্টাটার দেওয়া হয়েছে তাদেও আপনি অ্যাপ পাবলিশ করতে পারবেন না।

অ্যাপ গুগলে পাবলিশ করতে চাইলে আপনাকে তাদের ৭০ ডলার এবং ৯০ ডলারের প্রিমিয়াম এবং আনলিমিটেড এর দুইটির মধ্যে যে কোনো একটি কিনতে হবে।

আনলিমিটেডে আপনি আপনার অ্যাপ শুধু গুগলেই না অ্যাপেল স্টোরেও পাবলিশ করতে পারবেন।

4. Buildfire

বিল্ডফায়ার সম্পর্কে আসলে আমি তেমন কিছু বলবো না কারণ আমি বিল্ডফায়ার ব্যবহার করিনি। তবে আমি যতটা জানি তা হলো বিল্ডফায়ার একটা খুবি পাওয়ারফুল ওয়েবসাইট অ্যাপ তৈরি করার।

বিল্ডফায়ার তাদের প্লেনগুলোতে আনেক কিছু অফার করে। আর যেমন তাদের অফার ঠিক তেমন তাদের প্রত্যেকটা প্লেন এর মূল্য।

তারা মোট তিনটি প্লেন অফার করে যার প্রথমটিই ১০০ ডলারের উপরে। আর তাছারা এখানে আরও একটি অপশন আছে যার মাধ্যামে আপনি আপনার অ্যাপ কোনো কোডারকে দিয়ে তৈরি করিয়ে নিতে পারবেন।

আর সেজন্য আপনাকে কোনো প্লেন কিনতে হবে না। আপনি শুধু তাদের কোনো একজন কোডারকে হায়ার করে নিবেন।

5. MobiRoller

মবিরোলার হলো আরও একটি অ্যাপ তৈরি করার ওয়েবসাইট। মবিরোলারেও আপনি ফ্রি প্লেন পেয়ে যাবেন যার মাধ্যমে আপনি ফ্রিতে অ্যাপ তৈরি করে নিতে পারবেন।

তবে আপনার অ্যাপে মবিরোলারের অ্যাড সো করবে। আর সে অ্যাপের জন্য আপনি কোনো প্রকার রেবিনিউ পাবেন না।

আর মবিরোলারের প্লেন গুলোর মূল্য খুবি কম। যার তিনটি প্লেন এর মধে প্রথমটির মূল্য ১০ ডলার, দ্বিতিয়টির মূল্য ৩০ ডলার আর ত্বিতিয়টির মূল্য ৫০ ডলার।

আর এ ওয়েব সাইটটিতেও আপনি যুদি আপনার তৈরি করা অ্যাপটি মনিটাইজেশন করিয়ে ইনকাম করতে চান তবে আপনাকে তাদের প্রিমিয়াম প্লেন কিনতে হবে। সেটা আপনি ১০ ডলার দিয়েও কিনে নিতে পারবেন।

আরও কিছু পড়ুন আপনার পছন্দের

আপনি যুদি অনলাইন ইনাকামে আগ্রহি হন তবে আমাদের হোমপেইজ থেকে আনলাইন ইনকাম সম্পর্কে পড়ে নিতে পারেন।

আনলাইন ইনকামের জন্য জনপ্রিয় ফ্রি কোর্স, পেইড কোর্স ছারাও জনপ্রিয় বই নিয়েও আমরা লিখে রেখেছি। আর তাছারা অ্যাপ তেকে আপনি কী ভাবে বেশী ইনকাম করতে পারবেন এড সো করা ছারাও তাও আমরা লেখেছি।

অ্যাপ থেকে কী ভাবে অ্যাড সো করা ছারাও আর কতগুলো পদ্বতিতে ইনকাম করবেন তা জানার জন্য আমাদের এ লেখাটি পড়ে দেথতে পারবেন।

আপনি যুদি ওয়েব ডেবোলপমেন্ট এর দিতে আগ্রহি হয়ে থাকেন তবে আপনি আমাদের এ লেখাটি পড়ে দেখতে পারবেন। আমরা আমাদের এ লেখাটিতে লিখেছি ফ্রি কোডিং শেখার সেরা সোর্স নিয়ে।

আর তাছারা আমাদের লেখা ওয়েব ডেবোলপমেন্ট এর কম্পিলিট গাইডলাই এ লেখাটিও পড়ে নিতে পারবেন। আমরা আমাদের এ লেখাটিতে আপনাদের সাতে শেয়ার করেছি একটা সম্পূর্ণ রুটিন অল্প সময়ের মধ্যে ওয়েব ডেবোলপার হয়ে উঠার।

আর তাছারা আমরা আমদের আরেকটি লেখাতে শেয়ার করেছি আপনি কী করে একজন বিগেইনার লেভেলের অ্যাপ ডেবোলপা রহতে পারবেন তার সম্পূর্ণ গাইড লাইন।

অ্যাপ থেকে বেশী বেশী ইনকাম করতে চাইলে আমাদের এ লেখাটি পড়ে দেখতে পাড়েন।

Featured