টাকা ইনকাম করার ‍app

real research app

টাকা ইনকাম করার ‍app এ লেখাটিতে এমন একটি অ্যাপ সম্পর্কে বলবো যার থেকে আপনার খুব সহজেই টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

বিশেষ করে যারা ছাত্র তারাই এমন সার্চ করে থাকে। আর মাঝে মধ্যে কোনো অ্যাপে কাজ করে কিন্তু কোনো টাকা পায় না আবার কিছু কিছু অ্যাপ শুরুর দিকে দিলেও পরে আর দেয় না।

প্রথমেই বলে দেই আমি যে অ্যাপটির কথা আপনাদের বলবো তা দিয়ে আপনি নিজের হাত খরচের কিছু টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন। তবে যুদি মনে করেন যে আপনি নিজের পরিবারের জন্য কিছু করতে চান তবে এ অ্যাপ দিয়ে পারবেন না।

আপনি আমাদের ফ্রিল্যান্সিং এর উপর লেখাটি পড়ে দেখতে পারেন। কারণ এর থেকে আপনি ভালো এমাউন্টের টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন। আর সরাসরি ব্যাংক এর মাধ্যমে টাকা নিয়ে নিতে পারবেন।

এ অ্যাপটি শুধু মাত্র ছাত্রদের জন্য। আর এ অ্যাপটিতে কাজ করার জন্য আপনাকে ভালো ইংরেজি জানতে হবে না। তবে ফ্রিল্যান্সিং করতে চাইলে জানতে হবে।

রিয়েল রিসার্স টাকা ইনকাম করার ‍app

আমি আপনাদের সাথে যে অ্যাপটির কথা বলবো সেটি হলো রিয়েল রিসার্স (Real Research) এ অ্যাপটি। অ্যাপটি খুবি জনপ্রিয় আর অ্যাপটির নিজিস্ব একটি বিশাল কমুনিটিও আছে।

আর আপনার পেমেন্ট নিয়ে চিন্তা করার কোনো কারণ নেই এতে অটো পেমেন্ট হয় এটা কেউ পে করে না বরং রোবটিক প্রগ্রামের সাহায্যে প্রভাইড করা হয়।

তবে এখানে একটা কথা বলতে হয় যে আপনি পেমেন্ট পাবেন ক্রিপ্ত কারেন্সিতে। সেটা আপনার বিক্রয় করে তার পর বিকাশে টাকা নিতে হবে।

টাকা ইনকাম করার ‍app

যুদি আপনারা ক্রিপ্ট কারেন্সি কি এবং এক্সেন্জার কি তা না জেনে থাকেন তবে আপনাদের বুঝার সুবিধারর্থে আমি নিচের দিকে এটার সম্পর্কে লিখে দিবো। এখানে আমি শুধু অ্যাপগুলি নিয়েই বলছি।

রিয়েল রিসার্স অ্যাপটিতে আপনি যে ক্রিপ্ট কারেন্সি পেমেন্ট হিসেবে পাবেন তার নাম হলো TNC. একটি TNC এর মূল্য কত বাংলাদেশী টাকায় তা আপনারা হটবিটের সাহায্যে দেখে নিতে পারবেন।

আপনি আপনার TNC হটবিটের সাহায়ে বিক্রয় বা কিনে নিতে পারবেন। আর মজার বিষয় হলো TNC এর প্রাইজ বা মূল্য উঠা নামা করে। আর সেই অনুসারে আপনি TNC যে দিন বিক্রয় করবেন আপনি সেদিন এর মূল্য পাবেন।

তবে এখানে কথা হচ্ছে আপনি চাইলেই TNC সরাসরি বিক্রয় করতে পারবেন না। এর জন্য আপনাকে একটু কাজ করত হবে।

হ্যাঁ আপনি TNC বিক্রয় করতে পারবেন সরাসরি তবে এ ক্ষেত্রে ধোকাবাজদের হাতে পরার সম্ভাবনা থাকে। যারার আপনার TNC নিয়ে নিবে কিন্তু টাকা দেবে না।

অ্যাপটিতে কাজ কি ভাবে করবেন

রিয়েল রিসার্স (Real Research) অ্যাপটিতে কাজ করাটা তেমন কোনো কঠিন কাজ না, এটা খুবি সহজ।

রিয়েল রিসার্স (Real Research) অ্যাপ হলো একটি সার্ভে অ্যাপ। সার্ভে কম্পিলিট করতেও আপনাকে তেমন কোনো পরিশ্রম করতে হয় না তারা আপনার সামনে একের পর এক প্রশ্ন রাখবে আর আপনি সে প্রশ্নগুলো উত্তর করবেন।

ঠিক যেমন ভাবে আপানি আপনার স্কুল একজামে অবজেকটিভ এর উত্তর করে থাকেন। আর এ অ্যাপটিতে কাজ করতে আপনাকে অন্য বেশতি কোনো অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে না।

অ্যাপটিতে রেজিস্টার কি ভাবে করবেন

অ্যাপটিতে রেজিস্টার করার জন্য আপনার ইমেইল, মোবাইল নাম্বার, আর একটি পাসওয়ার্ড সেট করা লাগবে।

আর তার পর KYC কম্পিলিট করতে হবে।

KYC কম্পিলিট করার জন্য আপনার জাতিয় পরিচয় পত্রের প্রয়োজন নেই। আপনাকে লেভেল আকারে তারা আপনার সম্পর্কে কতগুলো প্রশ্ন করবে আপনি শুধু সেগুলো উত্তর করবেন।

KYC কম্পিলিট করার পর আপনি আপনার রিয়েল রিসার্স অ্যাপটি থেকে হোমে চলে যাবেন। আপনাকে শুরুর দিকে সার্ভে নাও দিতে পারে তবে একটু অপেক্ষা করলে আপনি সার্ভে পেতে শুরু করে দিবেন।

আপ প্রত্যেকটা সার্ভে কম্পিলিট করার পর আপনি সার্ভেতে দেখানো TNC আপনার একাউন্টে পেয়ে যাবেন। সেটা আপনি মাই ওয়ালেটে গিয়ে দেখে নিতে পারবেন।

TNC কে কি ভাবে টাকায় রুপান্তরিত করবেন

আসলে আপনি কখনই TNC ক্রিপ্ত কারেন্সিকে টাকাতে রুপান্তরিত করতে পারবেন না। আপনাকে টাকা পেতে হলে এ কিপ্ত কারেন্সি টোকেন কে বিক্রয় করতে হবে।

আর আপনারা এ কাজটি খুব সহজেই হটবিট দিয়ে করে নিতে পারবেন। তবে হটবিট থেকে আপনি সরাসরি টাকা পাবেন না। আপনাকে কিছু কাজ করতে হবে আর তার পর যে টোকেন আপনি পেয়ে যাবেন তা আপনি টেলিগ্রাম গ্রুপ গুলোতে বা যারা কিনতে চায় তাদের কাছে বিক্রয় করে দিতে পারবেন।

বর্তমানে যে টোকেনটি বেশী কেনা বেচা হয় সেটি হলো টেক্স বা টর্ন (TRX / Torn). আর আপনার পাওয়া TNC কে টেক্স বা টর্ন (TRX / Torn) টোকেনে রুপান্তরিত করে তার পরই ভালো মূল্যে বিক্রয় করতে পারবেন।

TNC কে কি ভাবে টেক্স বা টর্ন (TRX / Torn) করবেন

যেমনটা বলেছিলাম আপনি কোনো ক্রিপ্ত কারেন্সিকে অন্যটিতে রুপান্তরিত করতে পারেন না আপনাকে বিক্রয় করে কিনে নিতে হয়।

আমরাও এ কাজটিই করবো। আমরাও TNC টোকেন কিছু পদ্বতির মাধ্যমে বিক্রয় করবো আর তার পর TRX কিনবো। আর তার পর সে TRX বিক্রয় করে বিকাশে টাকা নিবো।

এ পদ্বতিটার জন্য আপনার প্রয়োজন হবে হটবিট নামের অ্যাপটি। গুগলে সার্চ করলে পেয়ে যাবেন। আর তাছারা আমি নিচে লিংকও দিয়ে দিব।

হটবিট অ্যাপটি গুগল থেকে ডাউনলোড করে নিয়ে একটি একাউন্ট ক্রিয়েট করে নিবে। আর তার পর মার্কেট নামের অপশনটিতে গিয়ে TNC লিখে সার্চ করবেন।

মার্কেট নামের অপশনটিতে ক্লিক করে আপনি সার্চবারে লিখবেন টি এন সি আর এন্টার প্রেস করবেন। আপনার সামনে যে পেজটি আসবে সেটি সেল টি এন সি বাছাই করবেন।

এর পর আপনি যে পেজটিতে পৈছে যাবেন তাবে আপনি একেবারে উপরে কোনায় একটি থ্রি ডট অপশন দেখতে পাবেন। আইকনটিতে ক্লিক করে TNC/ETC বাছাই করে নিবেন।

এতে করে আপনি আপনার টি এন স কয়েন গুলো দিয়ে ই টি সি কয়েন কিনে নিবেন।

এখান থেকে আপনি সেল বাটন টিতে ক্লিক করে আপনার অর্ডার প্লেছ করে দিবেন। তার পর যার লাগবে সে কিনে নিবে আপনা অর্ডারটি। আর যুদি তৎখনাত বিক্রয় করে চান তবে একেবারে বামে লাল দুইটি আর সবুজ একটি অপশন দেখত পাচ্ছেন তাদের মধ্যে থেকে সবুজটি বাছাই করে নিন।

সেল এ ক্লিক করার সাথে সাথে সেল হয়ে যাবে। তবে এটা করাতে আপনার ফি একটু বেশী কাটবে।

উপরের পদ্বতি গুলোর মতো করো আপনি আবার মার্কেট অপশনে গিয়ে লিখুন ETH. যাই আসুক সেল ই টি সি বাছাই করে নিন। আর গোল দেওয়া থ্রিডট আইকনটিতে ক্লিক করে ETH/USDT বাছাই করে নিন।

এবার আপনা কনভার্ট করা ETH এর এমাউন্ট লিখে সেল করে দিন। আর আপনার একাউন্টে USDT অ্যাড হয়ে যাবে। এবার আবার লিখুন সার্চবারে TRX.

আর বাই টেক্স বাছাই করুন। একই পদ্বতিতে গোল আকানো থ্রিডট আইকনে ক্লিক করে বাছাই করে নিন TRX/USDT. আর বাই ট্রেক্স অপশনটিতে ক্লিক করে দিন।

এখান থেকে আপনার টেক্স কেনা হয়ে যাবে। টেক্স কেনার পর আপনি আপনার টেক্স উইথড্রো করে নিবেন আপনার ট্রাস্ট ওয়ালেটে। গুগলে সার্চ করলে ট্রাস্ট ওয়ালেট পেয়ে যাবেন। আর এ ট্রাস্ট ওয়ালেট থেকেই আপনি আপনার ট্রেক্স বিক্রি করবেন।

ট্রাস্ট ওয়ালেট (Trust Wallet)

ট্রাস্ট ওয়ালেট হলো ক্রিপ্ত কারেরি রাখার একটি ওয়ালেট। ঠিক যেমন কয়েনবেস, ব্লকচেইন আর অন্য সব অনলাইন ওয়ালেট। তবে ট্রাস্ট ওয়ালেটের সুবিধা একটু বেশী বলে এবং এতে বেশীর ভাগ ক্রিপ্ত কারেন্সি সাপোর্ট করে বলে এটার ব্যবহার বেশী দেখা যায়।

ক্রিপ্ত কারেন্সি (Crypto Currency)

ক্রিপ্ত কারেন্সি হলো অনলাইন কারেন্সি যেগুরো টাকার মতো হাতে হাতে নিয়ে ঘুরা যায় না। এগুলো হলো অনলাইন কারেন্সি। যেগুলো দিয়ে আপনি কেনা বেচা করতে পারবেন তবে আপনাকে তা হাতে করে নিয়ে ঘুরতে হবে। এগুলো অনলাইনেই থাকবে আর অনলাইনেই লেন দেন চলবে।

হটবিট (Hotbit)

হটবিট হলো একটি এক্সচেন্জার অ্যাপ। যারা ক্রিপ্ত কারেন্সির সাথে পরিচিত তারা এক্সেন্জার অ্যাপ খুব ভালো ভাবেই চিনে যাবে। এক্সেন্জার অ্যাপ হলো সে সকল অ্যাপ যাতে একটি কারেন্সি দিয়ে তার মূল্যের সমপরিমান অন্য একটি কারেন্সি নিয়ে নেয়।

উদাহরণ স্বরুপ বলা যায় ধরুন আপনি ভারতে যাবেন। তবে বাংলাদেশর টাকা ভারতে চলে না। সুতরাং আপনার ভারতিয় টাকা যাকে রুপি বলা হয় তার প্রয়োজন।

বাংলাদেশী টাকাকে বিডিটি বা বাংলাদেশী টাকা বলে। আর ভারতিয় টাকাকে রুপি বলে। তো আপনি ব্যাংক থেকে আপনার কাছে থাকা বিডিটিকে রুপিতে বিনিময় করে নিলেন, এটাই এক্সেচেন্জ।

আরও কিছু পড়ুন আপনার পছন্দের

আমাদের সাইটের হোম পেজ থেকে আপনি বাছাই করে নিতে পারবেন আপনার পছন্দের লেখাটি। আর খুজে নিতে পারবেন অনলাইন ইনকাম সংক্রান্ত একাধিক আর্টিকেল।

আর তাছার অমরা বিভিন্ন অ্যাপ নিয়ে রিভিউ দিয়ে থাকি। আমাদের রিভিউ পরে আপনি আপনার জন্য সঠিক অ্যাপটি বাছাই করে নিতে পারবেন।

Featured