অ্যাডসেন্স থেকে টাকা তুলবেন যে ভাবে

cash

গুগলের অফার করা পাবলিশার ইনকাম পদ্বতি অ্যাডসেন্স আসলে একটা খুবি পরিচিত ইনকাম পদ্বতি। অ্যাডসেন্স যার মাধ্যম অনলাইনে অ্যাডভারটাইজারদের এড দেখিয়ে গুগল একটা ভালো এমাউন্ট পাবলিশারদের দিয়ে থাকে।

অ্যডসেন্স থেকে আপনি আপনার কন্টেন্ট থেকে আয় করে নিতে পারবেন। ভিডিও কন্টেন্ট বা রাইটিং কন্টেন্ট এর ক্ষেত্রে মনেটাইজেশন করিয়ে পাবলিশাররা ইনকাম করে নিতে পারে।

অ্যাডসেন্স ছারাও আরও অনেক এমন প্লাটফর আছে যে গুলোর অ্যাড পাবলিশাররা সো করিয়ে সেগুলোর থেকে ইনকাম করে নিতে পারে। তবে অ্যাডসেন্স সবগুলোর থেকে সেরা আর বেশ জনপ্রিয় যতটা পাবলিশারদের কাছে ততটা অ্যাডভারটাইজারদের কাছেও।

শুধু অ্যাডসেন্সই না আপনি আপনার অ্যাপ মনেটাইজেশণ করে আপনার অ্যাপ থেকেও ইনকাম করে নিতে পারবে।

আপনি যখন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে নিবেন আর তা গুগল অ্যাডসেন্স এর সাথে যুক্ত করবেন আর অ্যাডসেন্স আপনাকে এপ্রুভ করে দিবে তখন আপনি আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিকের দ্বারা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

অ্যাডসেন্সে এপ্লাই সম্পর্কে আরও কিছু জানতে আপনারা আমাদের এ লেখাটি পড়ে দেখতে পারেন। যেখানে আমরা লিখেছি অ্যাডসেন্স এপ্লাই সম্পর্কিত কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য।

অ্যাডসেন্স গুগলের তৈরি করা একটি অপর্চুনিটি যার মাধ্যমে আপনি আপনার কন্টেন্ট দ্বারা ইনকাম করে নিতে পারেন। সেটা হোক আপনার ভিডিও কন্টেন্ট বা আপনার লেখা কন্টেন্ট।

গুগল মূলত আপনাক টাকা এ বুঝে দেয়না যে আপনার ভিউ বা সাবসক্রাইবার কতগুলো, গুগল আপনাকে টাকা দেয় আপনার সাইটে দেখানে অ্যাড অণুসারে আপনার সাইটে দেখানো অ্যাড গুলোর বিডিং অণুৃসারে।

বিডিং আণুসারে টাকা মানে কি?

গুগল তাদের সাইটগুলোতে যে অ্যাড গুলো দেখায় তা যেমন তেমন অ্যাড না। এ অ্যাড গুলো খুবি বাছাইকৃত আর বিডিং করা।

আপনারা অনেকেই হয়তো নিলামের কথা শুনেছেন। কোনো জিনিস নিলাম করলে সে জিনিসটির পেছনে একের পর এক টাকা লাগাতে থাকে লোকেরা আর প্রতিজন তাদের নিজেদের মতো করে দাম বাড়াতে থাকে, আর এটাই হলো বিডিং।

গুগল যে অ্যাপগুলো তাদের সাইটে দেখায় তার সবগুলো এমন করেই বিড করা অ্যাড। যে অ্যাডবারটাইজারে অ্যাড যত ভালো বিড করে গুগল তাদের সাইটের তাদের প্রধান্য বেশী দেয়।

যার মানে বুঝতেই পাচ্ছেন।

গুগল অ্যাডসেন্স এর টাকা দেওয়ার পদ্বতি

গুগল অ্যাডসেন্স দুটি পদ্বতি অবলম্বন করে টাকা দিয়ে থাকে তাদের পাবলিশার দের।

আপনার জানার জন্য বলেদেই পাবলিশার হলোন তারা যারা গুগলের অ্যাড প্রমোট করে আর অ্যাডভারটাইজার হলেন তারা যারা তাদে অ্যাড সো করাতে বিড করে পাবলিশারদের।

পদ্বতি দুটি হলো ব্যাংকের মাধ্যমে এবংচেক এর মাধ্যমে।

বাংকে টাকা পদ্বতিতে পেমেন্ট

অ্যাডসেন্স থেকে টাকা তুলতে হবে আপাকে প্রথমে চেক করে দেখতে হবে আপনার একাউন্টে ১০০ ডলার হয়েছে কি না। আর যুদি ১০০ ডলার হয়ে যায় তবে আপনানি আপানার এডসেন্স একাউন্টে প্রবেশ করে আপনারে পেমেন্ট সেটিংসে গিয়ে আপনার পেমেন্ট ডিটেইল আপডেট করে দিবেন।

আর মনে রাখবেন কোথাও কোনো ভুল করবেন না নয়তো সমস্যায় পড়তে পারেন। পেমেন্ট ডিটেইল দেওয়ার পড় ভালো ভাবে চেক করে দেখে নিবেন সব ঠিক আছে কি না।

আর এই সময় আপনার সব ডিটেইল দেওয়ার পর আপনার ব্যাংক সোইফট কোড দিতে বলবে। আপনি যুদি সোইফট কোড না চিনে থাকেন তবে আপনি আপনার ব্যাংক এর সাথে যোগাযোগ করে নিবেন আর আপনার সোইফট কোড আপনি পেয়ে যাবেন।

আপনার পেমেন্ট ম্যাথোড দেওয়ার পর আপনার কাজ শেষ হয়ে যাবে।

মনে রাখবেন সাথে সাথে আপনার একাউন্টে টাকা চলে আসবে না। আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে। কারণ গুগল মাঝে মাঝে একটু বেশী সময় নেয়।

ব্যাংকে টাকা পদ্বতিতে প্রয়োজনীয় কাগজ

সব ব্যাংকের ট্রামস আর কন্ডিশন এক না। আর সেইজন্য আপনি ডলার তুলার ক্ষেতে একটু সমস্যাতে পড়তে পারেন। কারন সাধারণ টাকা তুলতে গেলে এত ঝামেলাতে পড়তে হয় না।

ব্যাংক থেকে টাকা তুলতে গেলে অবশ্যই সাথে পেমেন্ট হিস্টোরি আর ইনভয়েস নিয়ে যাবেন। আর অনেক ব্যাংই ডলার তুলার ক্ষেত্রে এ দুইটি বিষয় চেয়ে থাকে।

বিশেষ করে বাংলাদেশের ব্যাংক গুলোর মধ্যে ব্যাক ব্যাংক এ তথ্যগুলো যাচাই করে থাকে। আর তাই মনে করে সাথে আপনার সে মাসের পেমেন্ট এর ইনভয়েস আর হিস্টোরি প্রিন্ট কপি নিয়ে ব্যাংকে যাবেন।

আর সেখানে যাওয়ার পর আপনাকে একটি ফর্ম দিবে যার নাম সি ফর্ম। আর এ সি ফর্ম ফিলাপ করে জমাদেওয়ার ঠিক দুদিন পর আপনার একাউন্টে টাকা চলে আসবে।

আর আপনার এখানে ২০০০০টাকা পাওয়ার কথা কিন্তু ব্যাংক আপনাকে দিলো ১৯০০০০ টাকা। কারণ কি?

যেহেতু ডলার বাংলাদেশের টাকা নয় আর তাই এটা বাংলাদেমে একটু ঝামেলার হতে পারে। আসলে যখন ডলারের রেট কোনো ব্যাংকে যেমন তেমন মূল্য দিয়েই আপনার অর্থ হিসাব হবে।

চেক পদ্বতিতে টাকা

এখানে বলা বাহুল্য যে আপনি চাইলে চেক আকারেও টাকা নিতে পারবেন। আর সে জন্য আপনি আপনার ঠিকানাটা সথিক ভাবে দেখে নিন। কারন আপনার চেন আপনার দেওয়া ঠিকানাতে পৈাছোবে।

অ্যাডসেন্স এর ইউটিউব ইনকাম

অ্যাডসেন্সএর পেমেন্ট দেওয়ার পদ্বতি ওয়েবসাইটে যেই ইউটিউবেও সেই। কারণ পেমেন্ট প্রভাইডার তো একই। আর অ্যাডমোবড এর ক্ষেত্রেও তাই।

সুতরাং একটা পদ্বতি জানলে আন্য সবক পদ্বতি জানার প্রয়োজন হয় না।

আপনার পছন্দের আরও কিছু পড়ুন

আপনি যুদি এড মোব থেকে ইনকাম করতে বা অ্যাপ তৈরি করে ইনকাম করতে আগ্রহি হয়ে থাকেন আর কোডিং সম্পর্কে তেমন কিছুই জানেন না তবে আমাদের এ লেখাটি পড়ে দেখতে পারেন।

আমরা এখানে আপনার সাথে শেয়ার করেছি আপনি কি ভাবে কোডিং জানা ছারা ফ্রি বা পেইড সাইট থেকে কোনো একটা প্রগ্যামের বা গেম অ্যাপ তৈরি করে গুগলের এড মোব তেকে ইনকাম করবেন।

আর তাছারা যারা সত্যিকারের কোডার আর কোডিং করে অ্যাপ তৈরি করে গুগলে পাবলিম করেন কিন্তু তেমন ভালো ইনকাম করতে পাবেন না তারা চাইলে আমাদের এ লেখাটি পড়ে দেখতে পারবেন।

আমরা এ লেখাতে তুলে ধরেছি আপনি কোন কোন পদ্বতিতে ভালো পরিমানে ইনকাম করে নিতে পারবেন। এ পদ্বতি গুলো আপনার অ্যাপ তৈরি করে আয়কে করে তুলবে আরও বেশী।

Featured